বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন

ভুয়া ভিডিও আপলোড-শেয়ার-মন্তব্যে সাবধান : র‌্যাব

ভয়েসবাংলা প্রতিবেদক / ২৩৮ বার
আপডেট : বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যারা ভুয়া ভিডিও ও কনটেন্ট আপলোড করছেন, শেয়ার করছেন এবং অযাচিত মন্তব্য করছেন-তাদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের কথা জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশ ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বুধবার নিজ কার্যালয়ে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা জানান। তিনি বলেন, একটি চক্র জেনেশুনেই স্বার্থ হাসিলের জন্য ভুয়া ভিডিও কনটেন্ট শেয়ার ও প্রচার করছে। এ ধরনের বেশি কিছু পেজের অ্যাডমিনকে শনাক্ত করা হয়েছে, যারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে লাইক, কমেন্টস ও শেয়ার দিচ্ছেন, তাদেরও শনাক্ত করেছি। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

সম্প্রতি একটি স্বার্থান্বেষী মহল দেশে এবং বিদেশে বসে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টে চক্রান্ত ও চেষ্টা করে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা তথ্য প্রচারের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও কনটেন্ট ছড়িয়ে দিয়ে জনমনে ভীতি সৃষ্টি করছে। চক্রটি পূর্বে বিভিন্ন সময়ে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনার ভিডিও কনটেন্ট সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ভিডিও বলে প্রচারের চেষ্টা করছে। এমনকি পাশের দেশের একটি অগ্নিকাণ্ডের ভিডিওকে রংপুরের একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ভিডিও বলে প্রচারের চেষ্টা করেছে। এ সংক্রান্ত তথ্য ও ভিডিও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে যারা অপপ্রচার চালাচ্ছেন, তাদের বিরুদ্ধে অন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মতো র‌্যাবও সোচ্চার রয়েছে।

যারা বিভিন্ন মন্দিরে-পূজামণ্ডপে হামলায় সরাসরি জড়িত, যারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুয়া ভিডিও ও কনটেন্ট আপলোড করছেন, যারা সেগুলো শেয়ার করছেন, বিভিন্ন ধরনের অযাচিত মন্তব্য করছেন অর্থাৎ যারা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অপরাধ করেছন, র‌্যাব তাদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। ঢাকা, কুমিল্লা, ফেনী, রংপুর, চট্টগ্রাম, রূপগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে এ ধরনের ঘটনার মূল হোতা ও পেছন থেকে ইন্ধনদাতাসহ অন্তত ২২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, গতকাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, কুমিল্লার ঘটনায় মূল যে কালপ্রিট, তাকে গ্রেফতারের খুব কাছাকাছি আছি। র‌্যাবসহ অন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে। যারা মিথ্যা তথ্য সংবলিত কনটেন্ট, ভিডিও ও গুজব প্রচার করছে, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিচ্ছে বা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে, তারা যে শ্রেণিরই লোক হোক না কেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে, অভিযান চলছে। তিনি বলেন, আপনাদের মাধ্যমে দেশবাসীকে অনুরোধ জানাব, আপনারা যা করবেন জেনেশুনে বুঝে করবেন। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে না জেনে, না বুঝে কোনো ধরনের লাইক, কমেন্টস করবেন না, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়-এমন কিছু করবেন না। কারণ আপনাদের লাইক, শেয়ার, কমেন্টস কিংবা ভিডিও কনটেন্ট প্রচারে আরও অনেক মানুষ বিভ্রান্ত হবে। অনেক ভুল তথ্য ছড়িয়ে পড়বে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর