বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার ও গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, সংঘর্ষ-ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযান চালিয়ে আমরা অনেককে গ্রেফতার করেছি। তারা আমাদের অনেক নাম দিয়েছে। যারা জড়িত সকলের নাম আছে। সময় হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। বুধবার (১৭ জুলাই) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভিসি চত্বরে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এসব কথা বলেন। হারুন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রেলের স্লিপার খুলতে পারে না, মেট্রো স্টেশন ভাঙচুর করতে পারে না, হাইওয়েও আটকাতে পারে না। বিশেষ একটি মহল তাদের ওপর ভর করে এমন কার্যক্রম চালাচ্ছে। জড়িত সবার নাম আছে, সময় হলে ব্যবস্থা: ডিবি হারুন কোটা আন্দোলনের কর্মসূচি বিএনপি-জামায়াত ঠিক করে দিচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলন সাধারণ ছাত্রদের হাতে নেই ঢাকায় বৃহস্পতিবার মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশের ডাক হল ছাড়ছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা ঢাবি ক্যাম্পাসজুড়ে পুলিশ, হলগুলো ফাঁকা সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের হত্যাকাণ্ড ও অনভিপ্রেত ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী আদালতের রায় আসা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সবাই মিলে জনগণের ভোটাধিকার রক্ষা করতে চাই: সিইসি

ভয়েসবাংলা প্রতিবেদক / ২২১ বার
আপডেট : বুধবার, ২ মার্চ, ২০২২

নবনির্বাচিত নির্বাচন কমিশনারদের উদ্দেশে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ‘ভোটের দায়িত্ব পালনের সময় অপকর্ম ক্ষমার অযোগ্য দুর্নীতি। নির্বাচনি কর্মকর্তাদের প্রভাব ও প্রলোভনমুক্ত থেকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। অন্যথায় সেটি দুর্নীতি বলে গণ্য হবে। প্রভাব ও প্রলোভনমুক্ত থেকে আমাদের কাজ করতে হবে। দেখাতে হবে, আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টাটা অন্তত করেছি। আমরা সবাই মিলিত হয়ে জনগণের ভোটাধিকার রক্ষা করবো।’

ভোটার দিবস উপলক্ষে নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে বুধবার (২ মার্চ) আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনার মো. আহসান হাবীব খান, বেগম রাশেদা সুলতানা, মো. আলমগীর, মো. আনিছুর রহমান বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, শহীদ আনোয়ার গার্লস কলেজ ও আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২১ জন শিক্ষার্থীকে স্মার্টকার্ড দেওয়া হয়।

সভায় সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, রক্ষা করবো ভোটাধিকার’–এই স্লোগানের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন (ইসি) একটি অঙ্গীকার করে ফেলেছে। যদিও অঙ্গীকারটি ঠিক নয়। তবে অঙ্গীকার যখন করে ফেলেছে, এটা পালন করতে হবে। সফল হতে না পারি কিন্তু চেষ্টা করতে হবে। গণমানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার যে দায়িত্ব আমাদের ওপর রয়েছে সেটা পালন করতে হবে। ভোটাররা ভোটাধিকার প্রয়োগের সময়ে বাধা-বিপত্তির মুখোমুখি হতেও পারেন। বাধার মুখে পড়লে কমিশন হিসেবে আমাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। যাতে তারা মুক্তভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন। ভোটারদেরও মনে রাখতে হবে, ভোট কেবল অধিকার নয়, এটা তাদের দায়িত্বও।

সংসদ ও সরকার সৃষ্টিতে নির্বাচন কমিশন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে উল্লেখ করে সিইসি বলেন, ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয়সহ সব পর্যায়ে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতা দিয়ে আমাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমাদের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হতে হবে।

কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেন, ভোট নাগরিকদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অধিকার। আমরা নবনির্বাচিত কমিশন এবারের ভোটার দিবসের প্রতিপাদ্য বুকে ধারণ এবং লালন করে কার্যক্রম শুরু করেছি। আমাদের দায়িত্ব সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য ভোটার-প্রার্থীসহ নির্বাচনের সঙ্গে সম্পৃক্ত সবার সহযোগিতা চাই। সবার সহযোগিতা পেলে নিশ্চয়ই আমরা একটি ভালো নির্বাচন দিতে পারবো।’

কমিশনার আহসান হাবীব খান বলেন, ‘দেশের প্রতিটি নাগরিকের ভোটাধিকার নিশ্চিতে আমরা সবার সহযোগিতা চাই। আমাদের সদিচ্ছা ও প্রচেষ্টার অভাব নেই। যাতে একটা সুন্দর ও সুষ্ঠু পরিবেশে সবার অংশগ্রহণে প্রতিটি নির্বাচন উপহার দিতে পারি, সেজন্য সবার সহযোগিতা চাই।

কমিশনার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, বিগত অনেক নির্বাচনে আমরা ভোটের কাস্টিং কম দেখেছি। ঢাকা সিটি নির্বাচনে আমরা এই চিত্র দেখেছি। অথচ সবচেয়ে শিক্ষিত শ্রেণির মানুষ এখানে বসবাস করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর