সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আর্জেন্টিনার ঐতিহাসিক হ্যাটট্রিক শিরোপার হাতছানি কোপায় আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া ও ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ ইংল্যান্ড-স্পেন মুখোমুখি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ গুপ্তহত্যার প্রচেষ্টা নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা অলি তিন হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে ইইউভুক্ত চার দেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না : প্রধানমন্ত্রী ট্রাম্পের ওপর হামলায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নিন্দা রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি জমা দিলেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ট্রাম্পের হামলাকারীর নাম পরিচয় জানালো এফবিআই

ভোট-ভাতের অধিকার কেড়ে নিয়েছে সরকার : মির্জা ফখরুল

ভয়েসবাংলা প্রতিবেদক / ২৬১ বার
আপডেট : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের ভোট ও ভাতের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে দেশে মেগা প্রকল্প করে মেগা দুর্নীতি করছে। দুর্নীতিটা হচ্ছে তাদের প্রধান কাজ। ১০ টাকা কেজিতে চাল দেবে বলে এখন দাম বাড়িয়ে ৭০ টাকায় চাল খাওয়াচ্ছে বর্তমান সরকার।

রোববার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে শহরের জামতলা জান্নাত কমিউনিটি সেন্টারে বিএনপি চেয়ারপারসনের সদ্য প্রয়াত উপদেষ্টা ও সাবেক হুইপ অ্যাডভোকেট ফজলুল হক আছফিয়ার শোক সভায় যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন। শোক সভায় জেলা বিএনপির সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমেদ মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুলের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ. জেড. এম. জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন জীবন, সদস্য নাছির উদ্দিন চৌধুরী, মিজানুর রহমান, সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেনসহ অনেকে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলার জনগণ যুদ্ধ করেছিল একটি মুক্ত গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়তে, মানুষের ভোট দেওয়ার অধিকার, ভাতের অধিকার, বাক স্বাধীনতা, মানবিক মর্যাদা নিশ্চিত করা জন্য। কিন্তু এসব কিছু বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার হরণ করেছে। মানুষের ভোটের ও ভাতের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। বাংলাদেশ এখন কঠিন সময় পার করছে, দুঃসময় পার করছে। তিনি বলেন, দেশে সাম্প্রদায়িকতা উস্কে দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। কুমিল্লাতে পূজা মণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখা হয়েছে আওয়ামী লীগের অধীনে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরাও পড়েছেন তারা। বাংলার সব ধর্মের মানুষের নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব হচ্ছে সরকারের। কিন্তু সরকার সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে। বৃহত্তর মুসলিম সম্প্রদায়ের নিরাপত্তাও দিতে পারেনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, এদেশে নির্বাচন তখনই হবে, যখন দেশে নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হবে। নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হতে হলে সরকারকে ক্ষমতা থেকে নেমে নির্বাচন দিতে হবে। নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। তাহলে জনগণের ভোটের নির্বাচন সম্ভব। না হয়, তাদের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়, একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন দিলে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর