বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার ও গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, সংঘর্ষ-ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযান চালিয়ে আমরা অনেককে গ্রেফতার করেছি। তারা আমাদের অনেক নাম দিয়েছে। যারা জড়িত সকলের নাম আছে। সময় হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। বুধবার (১৭ জুলাই) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভিসি চত্বরে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এসব কথা বলেন। হারুন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রেলের স্লিপার খুলতে পারে না, মেট্রো স্টেশন ভাঙচুর করতে পারে না, হাইওয়েও আটকাতে পারে না। বিশেষ একটি মহল তাদের ওপর ভর করে এমন কার্যক্রম চালাচ্ছে। জড়িত সবার নাম আছে, সময় হলে ব্যবস্থা: ডিবি হারুন কোটা আন্দোলনের কর্মসূচি বিএনপি-জামায়াত ঠিক করে দিচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলন সাধারণ ছাত্রদের হাতে নেই ঢাকায় বৃহস্পতিবার মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশের ডাক হল ছাড়ছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা ঢাবি ক্যাম্পাসজুড়ে পুলিশ, হলগুলো ফাঁকা সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের হত্যাকাণ্ড ও অনভিপ্রেত ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী আদালতের রায় আসা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা-পদ্মা পাড়ে বন্যার আরো অবনতি

রিপোর্টার / ২৮৯ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ৩১ আগস্ট, ২০২১

ব্রহ্মপুত্র-যমুনার পানি হু-হু করে বাড়ছে। সেই সঙ্গে মাঝে কিছুটা কমলেও ফের বাড়ছে পদ্মার পানি। ফলে এই তিন নদের অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে।

পাউবো জানিয়েছে, একদিনে আরো একটি জেলার নিম্নাঞ্চল নতুন করে প্লাবিত হয়েছে। বর্তমানে ১১টি জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত অবস্থায় রয়েছে।

ব্রহ্মপুত্র-যমুনার পানি শুক্রবার পর্যন্ত বাড়তে পারে। একই সময়ে বাড়বে গঙ্গা-পদ্মার পানির সমতলও। তবে খোয়াই ব্যাতীত মেঘনা অববাহিকার নদ-নদীর পানির সমতল হ্রাস পাচ্ছে। ফলে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, জামালপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর এবং ফরিদপুর জেলার নিম্নাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হতে পারে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, বর্তমানে ছয়টি নদ-নদীর পানি ১৪টি স্থানে বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে। ধরলার পানি কুড়িগ্রামে বিপৎসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারীতে ৩৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

যমুনার পানি গাইবান্ধার ফুলছড়িতে বিপৎসীমার ২৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, সাঘাটায় ৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, জামালপুরের বাহাদুরাবাদে বিপৎসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে ৪২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, কাজিপুরে ৪৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, সিরাজগঞ্জে ৪১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়িতে ১১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পাবনার মথুরায় ৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ও মানিকগঞ্জের আরিচায় ৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এছাড়া আত্রাইয়ের পানি সিরাজগঞ্জের বাঘাবাড়িতে বিপৎসীমার ৪৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ধলেশ্বরীর পানি টাঙ্গাইলের এলাসিনে ৫০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং পদ্মার পানি রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বিপৎসীমার ৪৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পাউবো জানিয়েছে, বিভিন্ন নদ-নদীতে তাদের পর্যবেক্ষণাধীন ১০৯টি স্টেশনের মধ্যে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) ৫১টিতে পানির সমতল বেড়েছে। কমেছে ৫৩টি স্টেশনের পানির সমতল। অপরিবর্তিত আছে পাঁচটি স্টেশনের পানির সমতল। আর ১৪টি স্টেশনের পানির সমতল বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর