বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার ও গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, সংঘর্ষ-ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযান চালিয়ে আমরা অনেককে গ্রেফতার করেছি। তারা আমাদের অনেক নাম দিয়েছে। যারা জড়িত সকলের নাম আছে। সময় হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। বুধবার (১৭ জুলাই) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভিসি চত্বরে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এসব কথা বলেন। হারুন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রেলের স্লিপার খুলতে পারে না, মেট্রো স্টেশন ভাঙচুর করতে পারে না, হাইওয়েও আটকাতে পারে না। বিশেষ একটি মহল তাদের ওপর ভর করে এমন কার্যক্রম চালাচ্ছে। জড়িত সবার নাম আছে, সময় হলে ব্যবস্থা: ডিবি হারুন কোটা আন্দোলনের কর্মসূচি বিএনপি-জামায়াত ঠিক করে দিচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলন সাধারণ ছাত্রদের হাতে নেই ঢাকায় বৃহস্পতিবার মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশের ডাক হল ছাড়ছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা ঢাবি ক্যাম্পাসজুড়ে পুলিশ, হলগুলো ফাঁকা সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের হত্যাকাণ্ড ও অনভিপ্রেত ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী আদালতের রায় আসা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

এনআইডি কার্যক্রম স্থানান্তরে আইনি জটিলতা আছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ভয়েসবাংলা প্রতিবেদক / ১২২ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২১

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) কার্যক্রম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আনার জন্য কিছু আইনি জটিলতা রয়েছে। এজন্য আইন মন্ত্রণালয়ের স্পষ্টিকরণ চাওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে গণমাধ্যমকেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত ‘বিএসআরএফ সংলাপে’ সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক। এ সময় সংগঠনের যুগ্ন সম্পাদক আজাদ মাসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন, অর্থ সম্পাদক মো. শফিইল্লাহ সুমন, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক তাওহীদুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য ইসমাইল হোসাইন রাসেল, শাহজাহান মোল্লা, হাসিফ মাহমুদ শাহ, শাহাদাত হোসেন রাকিব উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এনআইডি আগে ছিল নির্বাচন কমিশনের হাতে। আগে যারা ভোটার তাদেরই এনআইডি দেওয়া হতো। সারাবিশ্বে জন্ম থেকে শুরু করে মৃত্যু পর্যন্ত এনআইডির আওতায় থাকে। আমাদের নির্বাচন কমিশন ১৮ বছরের পর থেকে এনআইডি দিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শূন্য বয়স থেকে এনআইডি চালু করতে পরিকল্পনা নিয়েছেন এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এনআইডি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আসার ব্যাপারে কিছু আইনি জটিলতা আছে। সেটা দেখার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে ফাইল। আইন মন্ত্রণালয় আইনগত দিক যাচাই-বাছাই করে দেখছে। প্রধানমন্ত্রী সবসময় বলেন আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে জিরো টলারেন্স, সে নির্দেশনা মেনেই আমরা কাজ করছি।

এনআইডির কার্যক্রম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কবে থেকে শুরু করছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) কথাটা আমি বলেছি। এনআইডিতে আইনি কিছু জটিলতা রয়েছে। সেটার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ের কাছে ক্লিয়ারেন্স বা স্পষ্টিকরণ চেয়েছি। কারণ আইনে ধারা, উপধারা সংশোধন করতে হবে কিনা? তা জানার জন্য। এজন্যই স্পষ্টকরণের ব্যাপারটা আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। তারা মতামত দিলে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপে যাবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর